মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
“সিলেট জেলা বিএনপির অভ্যন্তরীণ গণতন্ত্র বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত”  » «   গোলাপগঞ্জে হাঁসের সঙ্গে এ কেমন শত্রুতা!  » «   মির্জা ফখরুল সিলেটে আসছেন ২৪ সেপ্টেম্বর  » «   জগন্নাথপুরে রাধারমণ উৎসব পালনে প্রস্তুতি সভা  » «   সিলেটে ঝাড়ু হাতে ৩ ব্রিটিশ এমপি  » «   সিলেট জেলা ও মহানগর যুবলীগের শোক  » «   সরকারি দলের ছাত্র ও যুবকদের রন্ধে রন্ধে দুর্নীতি প্রবেশ করেছে : কর্নেল অলি  » «   সততা ও দক্ষতাই ব্যবসার মূলধন :ভিপি শামীম  » «   লন্ডনের সাপ্তাহিক জনমতের সাংবাদিক বিমানবন্দরে সংবর্ধিত  » «   সিলেট জেলা ও মহানগর জমিয়তের বিক্ষোভ মিছিল ১৮ সেপ্টেম্বর  » «   ঊর্ধ্বগতি রোধের খোলা বাজারে পেঁয়াজ বিক্রি  » «   সিরিয়ায় বোমা হামলায় নিহত ১২  » «   সিলেট সফরে যে বিতর্কের জন্ম দেন শোভন  » «   সদ্য পদত্যাগী শোভন-রাব্বানীকে নিয়ে যা ছিল গোয়েন্দা রিপোর্টে  » «   আইনি সব নিয়ম মেনেই ছাত্রদলের কাউন্সিল, সতর্ক বিএনপি  » «  

প্রশাসন নিরব : নিষিদ্ধ পলিতিনে সয়লাভ বাজার

রেজুওয়ান আহমদ :সিলেট নগরীর বাজার গুলোতে নিষিদ্ধে পলিতিনে সয়লাব হয়ে গেছে। পরিবেশ দূষিত এসব পলিতিন বিক্রি বা ব্যবহারে নিষেধ থাকলেও তা মানছেনা বিক্রেতা ও ক্রেতা। প্রতিদিন নগরীর বাজার ও দোকানগুলিতে বিক্রি করা হচ্ছে পলিতিন। ক্রেতা পলিতিনে বাজার করে বাসায় নিয়ে পলিতিন ব্যাগ বিভিন্œ জায়গায় ফেলে দিচ্ছে। যা কারণে পরিবেশ হচ্ছে দূষিত। প্রকাশ্য পলিতিন বিক্রি করলেও প্রশাসনের নেই কোনো পদক্ষেপ। সরকারের পক্ষ থেকে পাটের ব্যাগ বিক্রি বা ব্যবহারের কথা বললেও তা মানছে না কেউ। অসাধু কিছু ব্যবসায়ী বেশি মুনাফার লোভে চালিয়ে যাচ্ছে নিষিদ্ধ পলিতিনের ব্যবসা। হকার মার্কেটে নিষিদ্ধ পলিতিনের ব্যবসা জমজমাট হয়ে উঠেছে। এই মার্কেটে প্রতিদিন হাজার হাজার পলিতিন পাইকারী দামে বিক্রি করা হচ্ছে। যা নগরীর বাজার গুলিতে খুচরা দামে বিক্রি করা হয়। প্রশাসনের নজর দারি না থাকায় এই মার্কেটে বিভিন্ন কারখানা থেকে গাড়িভরে প্রতিদিনই পলিতিন ব্যাগ আসছে। মাঝে মধ্যে র‌্যাব অভিযান চালিয়ে কিছু পলিতির উদ্ধার করলেও বাকি সব থেকে যাচ্ছে ধরাচুয়ার বাইরে। পলিতিন ব্যাগ যেখানে সেখানে ফেলে দেওয়ায় কৃষি জমি যেমন নষ্ট হচ্ছে তেমনি নদী-নালার পানি হচ্ছে দূষিত। পরিবেশ বাধি কিছু সংগঠন নিষিদ্ধ পলিতিনের বিরুদ্ধে স্বোচ্ছার থাকলেও প্রশাসন নিরভ থাকায় কিছু কাজে আসছে না। বাজার করতে আসা কয়েকজন ক্রেতারা জানান বাজার করতে এলে মালপত্র নেওয়ার জন্য পলিতিন ব্যাগ ছাড়া অন্যকিছু পাওয়া যায় না। পলিতিন ব্যাগইয় বাজার করে নিতে হয়। ব্যবসায়ীরা পলিতিন ব্যাগে বেশি লাভ হওয়ায় অন্য ব্যাগ রাখে না। পলিতিন ব্যাগে করে আমাদের বাধ্য হয়ে বাজার নিতে হয়। বাজারের মধ্যে যদি পাটের ব্যাগ বেশি করে সরর্বরাহ করা হত তাহলে আমরা পলিতিন ব্যাগ ব্যবহার করতাম না।

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে এখানে(লাইনে) ক্লিক করে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিন

(আমার বাংলাদেশ/রু-আহমেদ/ম/৬/প/ম )

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করবেন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by: -