রবিবার, ৫ জুলাই ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২১ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
গোলাপগঞ্জে ছাত্রদলেন উদ্যোগে মাস্ক ও সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ  » «   মিয়ানমারের জেনারেলরা চীনের ওপর অসন্তুষ্ট  » «   বার্সেলোনাকে মেসির পক্ষে একাটানা সম্ভব না’  » «   চীনের দাবি স্পেন থেকে ছড়িয়েছে করোনা  » «   বগুড়ায় যাত্রী সেজে কৌশলে মিষ্টি কিনতে পাঠিয়ে অটোরিকশা চুরি  » «   করোনা টেস্ট বিনামূল্যের দাবিতে রাজশাহীতে মানববন্ধন  » «   র‌্যাবের ভুয়া পরিচয়ে চাঁদাবাজি ২ যুবক আটক  » «   বাসের ধাক্কায় প্রাণ গেল ২ মোটরসাইকেল আরোহীর  » «   ট্রাক-পিকআপ সংঘর্ষে ২ চালক নিহত  » «   রোটারি ক্লাব অব সিলেট গ্রীন সিটির দায়িত্ব হস্তান্তর  » «   বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা প্রদান আব্দুল জব্বার জলিল ট্রাস্টের সময়োপযোগী উদ্যোগ: নাদেল  » «   ২০ লাখ টাকার অবৈধ তার মিলল পল্লী বিদ্যুতের গোডাউনে  » «   ১০ শয্যাবিশিষ্ট সেন্ট্রাল অক্সিজেন ইউনিটের উদ্বোধন  » «   করোনা পজিটিভ’ হলেও সুস্থ আছি”মাশরাফি  » «   আইসোলেশনে থেকে হাস্যকর প্রেস ব্রিফিং করে বিএনপি: তথ্যমন্ত্রী  » «  

শিবগঞ্জে অনশনরত অনন্যাকে নয়নের পরিবার ঘরে তুললেন বিবাহের আশ্বাসে!

আমার বাংলাদেশ অনলাইন ডেস্ক :শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার পৌর এলাকার ৯নং ওয়ার্ডের ভূরঘাটা গ্রামে নয়নের বাড়িতে বিয়ের দাবীতে ৩দিন ধরে অনশনরত নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থী অনন্যাকে সুস্থ হলে বিবাহের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ঘরে তুললেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় পড়–য়া নয়নের পরিবার।
জানা যায়, শিবগঞ্জ পৌর এলাকার জলিল প্রামানিকের একমাত্র সন্তান রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে আরবী বিভাগে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থী জয়নাল আবেদিন নয়নকে বিয়ের দাবীতে ভূরঘাটায় নয়নের গ্রামের বাড়িতে অনশনরত নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থী মেঘনা আক্তারকে(অনন্যা) ঘরে তুলেছেন নয়নের পরিবার। সরেজমিনে গেলে অনশনরত মেঘনা আক্তার অনন্যা সাথে বলতে চাইলে প্রথমে সাংবাদিকদেরকে বাঁধা প্রদানের চেষ্টা করা হয়। পরে ছেলের মা সাংবাদিকদের সাথে ঘরের বাহিরে কথা বললেও অনন্যাকে যে ঘরে রাখা হয়েছে সে ঘরে সাংবাদিকরা কথা বলতে গেলে নয়নের বাবা জলিল সাংবাদিকদের সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ করে। সাংবাদিকরা তাকে প্রশ্ন করলে সে কর্কশ ভাষায় বলে হ্যাঁ মেনে নিয়েছি। কিন্তু ছেলের বাবা জলিল অনন্যার সাথে কথা বলতে দেয়নি। ছেলের পরিবারের পক্ষ থেকে সাংবাদিকদের বলা হয় থানায় ওসির সাথে বিষয়টি নিয়ে কথা হয়েছে। এব্যাপারে শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মিজানুর রহমান বলেন, আমার সাথে ছেলের পরিবারের কোন কথা হয়নি, ৩লক্ষ টাকা দেনমোহরানার বিষটিও আমি জানিনা, এমনি মেয়েটিকে মেনে নেওয়া হয়েছে তাও আমি জানিনা। মেয়েটি শেষ পর্যন্ত সুফল পাবে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন এলাকার সচেতন একটি মহল, তারা আরও বলেছেন মেয়েটির বিপক্ষে একটি প্রভাবশালী মহল কাজ করছে।

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে এখানে(লাইনে) ক্লিক করে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিন

(আমার বাংলাদেশ/কেআহমেদ// )

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by: -