শুক্রবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
দরিদ্র্যতা কমাতে ধনীরা গরিবদের বিয়ে করুন: ইন্দোনেশিয়ার মন্ত্রী  » «   তাহিরপুরে সংস্কার হচ্ছে না শহিদমিনার  » «   শাবিতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও মহান শহিদ দিবস পালিত  » «   ৬৮ বছরেও হয়নি ভাষা সংগ্রামীদের তালিকা  » «   সুনামগঞ্জে প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন  » «   গোলাপগঞ্জে একুশের প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা  » «   গোয়াইনঘাটে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি  » «   সিলেট জেলা ছাত্রদলের ৫ সাংগঠনিক টিম গঠন  » «   শ্রদ্ধার ফুল হাতে সিলেট শহীদ মিনারে মানুষের ঢল  » «   প্রেমিকের সাথে হোটেলে প্রবাসীর স্ত্রী, জেল-জরিমানা  » «   এই প্রথম ইংল্যান্ড দলে একসাথে ৩ মুসলিম ক্রিকেটার  » «   আমি উধাও হইনি, দেশেই আছি : বুবলী  » «   জাতীয় দলে ডাক পেলেন মেহেরপুরের সোহাস  » «   প্রেমিকাকে ৮৭ লাখ টাকা হাতখরচ দেন রোনালদো  » «   শহীদ মিনারে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন  » «  

ওমানে নতুন আইনে বিপাকে বাংলাদেশিরা

আমার বাংলাদেশ অনলাইন ডেস্ক :ওমানীকরণের অংশ হিসেবেই দেশটিতে সেলস (বিক্রয়) প্রতিনিধি/সেলস প্রমোটার ও পারেচজ (ক্রয়) প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করা প্রবাসীদের বিদ্যমান ভিসার মেয়াদ বাড়ানো বন্ধ হয়ে গেছে। ফলে বিপাকে পড়েছেন দেশটিতে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

সম্প্রতি দেশটির জনশক্তি মন্ত্রণালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে এমনটাই জানানো হয়েছে। ওমানে বসবাসরত বাংলাদেশিসহ বিশ্বের সব দেশের নাগরিক এই নিষেধাজ্ঞায় পড়েন। ওমানি নাগরিকদের আরও বেশি চাকরির সুযোগ দেওয়ার লক্ষ্যেই মূলত এসব পেশায় প্রবাসী কর্মী নিয়োগে বিধিনিষেধ জারি করে দেশটির জনশক্তি মন্ত্রণালয়।

ওমানের জনশক্তিমন্ত্রী শেখ আবদুল্লাহ বিন নাসের আল বাকরী জানিয়েছে, শুধু ওমানিরাই বেসরকারি খাতের প্রতিষ্ঠানগুলোতে সেলস (বিক্রয়) প্রতিনিধি/সেলস প্রমোটার এবং পারেচজ (ক্রয়) প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করতে পারবেন।

বিক্রয় প্রতিনিধি/বিক্রয় প্রচারক ও ক্রয়ের প্রতিনিধি হিসেবে যেসব প্রবাসী বাংলাদেশিসহ অন্যান্য দেশের প্রবাসীরা ওমানে কাজ করছেন, তাদের বিদ্যমান ভিসার মেয়াদ শেষ হওয়ার পর আর পুনর্নবীকরণ করা হবে না এবং তাদের চলমান ভিসার মেয়াদ শেষ হওয়ার পরে তাদেরকে স্বদেশে ফিরে যেতে হবে।

স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমকে জনশক্তিমন্ত্রী জানান, মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী জানানো হয়েছে বর্তমানে এসব পেশায় কর্মরত বিদেশি কর্মীদের জন্য ওয়ার্ক-পারমিট লাইসেন্সগুলি নবায়ন আর করা হবে না, যাতে তাদের জায়গায় সহজেই ওমানিদের প্রতিস্থাপন করা যায়। এক্ষেত্রে কোম্পানির মালিক আর প্রবাসী কর্মীদের মধ্যে চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ার পরে ভিসার মেয়াদ আর বাড়ানো হবে না।

এই সিদ্ধান্তের ফলে অনেক বাংলাদেশিকে দেশে ফিরে আসতে হচ্ছে। এই আইন শুধুমাত্র যাদের ভিসা বিক্রয় প্রতিনিধি/বিক্রয় প্রচারক ও ক্রয়ের প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছেন তাদের জন্য।

ওমানের জনশক্তি মন্ত্রণালয়ের এক সিনিয়র কর্মকর্তা বলেন, ‘ওয়ার্ক পারমিটের মেয়াদ শেষ হওয়ার পরে বিক্রয় প্রতিনিধি/বিক্রয় প্রচারক ও ক্রয়ের প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত প্রবাসীর ওমান থেকে চলে যেতে হবে এবং তাদের ভিসা পুনর্নবীকরণ করা যাবে না এবং এইসব কাজের জন্য আর নতুন করে কোনো ভিসাও দেওয়া হবে না’।

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে এখানে(লাইনে) ক্লিক করে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিন

(আমার বাংলাদেশ/রু-আহমেদ/প/ম )

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করবেন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by: -