শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
করোনা উপসর্গ নিয়ে বৃদ্ধের মৃত্যু, সৎকার করলো প্রশাসন  » «   সিলেটে ছুরিকাঘাতে শ্রমিক নেতা খুন  » «   কোয়ারেন্টিনে নারী পুলিশ সদস্যের বিষপানে মৃত্যু  » «   মাছ ব্যবসায়ী যখন ডাক্তার’  » «   সিলেটে করোনা সংখ্যা প্রতিদিন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে  » «   শিক্ষকের ধর্ষণে ১০ বছরের শিশু অন্তঃসত্তা  » «   পুলিশের হাত থেকে বাঁচতে নদীতে ঝাঁপ নারী নিখোঁজ  » «   একটি ঘুষি দেই দম বন্ধ হয়ে যায় ”তারপর ঘাড় মটকে হত্যা করি  » «   শনিবার বেলা ১১টায় বনানী মসজিদে সাহারা খাতুনের জানাজা  » «   দেশে নতুন ২ জন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি  » «   সাহেদ যে কাজ করেছে শাস্তি তাকে পেতেই হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী  » «   করোনা জয় করে মানুষের সেবায় ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মনজুর-এ-মর্শেদ  » «   সাংবাদিক কী সন্ত্রাসী”ভাড়াটিয়া গুন্ডা ”ইকরামুল কবির  » «   নাট্যনির্মাতা স্বপন সিদ্দিকী করোনায় মারা গেলেন  » «   বনানী কবরস্থানে মা বাবার পাশে দাফন করা হবে সাহারা খাতুন’কে  » «  

তাহিরপুরে আহত সাংবাদিকের মামলা নেয়নি পুলিশ ?

সুহেল আহমদ সাজু, তাহিরপুর প্রতিনিধি :সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে সংঘর্ষের ঘটনায় আহত সাংবাদিকের মামলা নেয়নি থানা পুলিশ। এ ঘটনার প্রতিবাদে উপজেলায় কর্মরত সাংবাদিকরা মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে। সোমবার (১ জুন) দুপুরে তাহিরপুর উপজেলা প্রেসক্লাবের আয়োজনে উপজেলা পরিষদ চত্বরে এ মানববন্ধন কর্মসূচী ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা বলেন, উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের বালিয়াঘাটা সড়কপাড়া গ্রামে ২৫ মে উপজেলা প্রেসক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক ও মানবজমিন তাহিরপুর উপজেলা প্রতিনিধি এমএ রাজ্জাক ও একই গ্রামের আব্দুর রশীদের ছেলে এরশাদ আলম বিশু পক্ষদ্বয়ের মধ্যে তুচ্ছ বিষয়কে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষের ঘটনায় উভয় পক্ষের ৪ জন আহত হয়। ঘটনার ৫দিন পর তাহিরপুর থানা পুলিশ এক পক্ষের মামলা নিলেও রহস্য জনক কারণে সাংবাদিক আব্দুর রাজ্জাকের মামলা নেয়নি থানা পুলিশ। মানববন্ধনে বক্তারা সাংবাদিক আব্দুর রাজ্জাকের দায়েরকৃত অভিযোগটি আমলে নিয়ে মামলা রুজ্জু করার দাবী জানান, সেই সাথে তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগটি প্রত্যাহারেরও দাবী জানান।

এ বিষয়ে বক্তব্য জানতে তাহিরপুর থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ আতিকুর রহমানের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এ বিষয়ে আমি কোন লিখিত অভিযোগ পাইনি।

এদিকে সাংবাদিক রাজ্জাক বলেন, ঘটনার পরের দিন আমি নিজে বাদী হয়ে অভিযোগ দিয়েছি। থানার অফিসার ইনচার্জ আমাকে ফোন করে অভিযোগটিতে আমার পরিবারের অন্য কাউকে বাদী করতে বলেন। পরে আমি আমার বড় ভাই নুরু মিয়াকে বাদী করে পুনরায় অভিযোগ দায়ের করি। এখন কেন, বা কী কারণে তিনি অভিযোগের বিষয়টি অস্বীকার করছেন তা আমার বোধগম্য হচ্ছেনা।

প্রতিবাদ সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি আমিনুল ইসলাম, সহ-সভাপতি বাবরুল হাসান বাবলু, সাধারণ সম্পাদক আলম সাব্বির, সাংগঠনিক সম্পাদক কামাল হোসেন, অর্থ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন শাহ্, সাংবাদিক আবির হাসান মানিক, সামায়ুন কবীর, শফিকুল ইসলাম স্বাধীন, মুবিনুর মিয়া, রোমান আহমেদ তুষা, টাইফুন মিয়া, উজ্জল হাসান, সাকিল হাসান, শাহ আলম প্রমুখ।

 (আমার বাংলাদেশ/কাআহমেদ// )

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে এখানে(লাইনে) ক্লিক করে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিন

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করবেন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by: -