শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
করোনা উপসর্গ নিয়ে বৃদ্ধের মৃত্যু, সৎকার করলো প্রশাসন  » «   সিলেটে ছুরিকাঘাতে শ্রমিক নেতা খুন  » «   কোয়ারেন্টিনে নারী পুলিশ সদস্যের বিষপানে মৃত্যু  » «   মাছ ব্যবসায়ী যখন ডাক্তার’  » «   সিলেটে করোনা সংখ্যা প্রতিদিন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে  » «   শিক্ষকের ধর্ষণে ১০ বছরের শিশু অন্তঃসত্তা  » «   পুলিশের হাত থেকে বাঁচতে নদীতে ঝাঁপ নারী নিখোঁজ  » «   একটি ঘুষি দেই দম বন্ধ হয়ে যায় ”তারপর ঘাড় মটকে হত্যা করি  » «   শনিবার বেলা ১১টায় বনানী মসজিদে সাহারা খাতুনের জানাজা  » «   দেশে নতুন ২ জন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি  » «   সাহেদ যে কাজ করেছে শাস্তি তাকে পেতেই হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী  » «   করোনা জয় করে মানুষের সেবায় ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মনজুর-এ-মর্শেদ  » «   সাংবাদিক কী সন্ত্রাসী”ভাড়াটিয়া গুন্ডা ”ইকরামুল কবির  » «   নাট্যনির্মাতা স্বপন সিদ্দিকী করোনায় মারা গেলেন  » «   বনানী কবরস্থানে মা বাবার পাশে দাফন করা হবে সাহারা খাতুন’কে  » «  

কানাইঘাটে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানীর অভিযোগ!

আমার বাংলাদেশ অনলাইন ডেস্ক :সিলেট জেলার কানাইঘাট উপজেলার ছোটফৌদ গ্রামে ৩ ব্যক্তিকে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। ভুক্তভোগীরা মামলা ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। গত ৩০ মে শনিবার সিলেট পুলিশ সুপারের কাছে মিথ্যা দিয়ে হয়রানী করায় একই থানার এরালীগুল গ্রামের মৃত মাহমদ আলীর ছেলে নাজিম উদ্দিন, ছোটফৌদ গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা শামসুদ্দিন চৌধুরীর ছেলে ইকবাল বাহার, বাঙ্গালীপাড়া গ্রামের মৃত ময়না মিয়ার পুত্র আলী হোসেন একটি অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

অভিযোগে তারা উল্লেখ করেন, কানাইঘাট থানার দনা চা বাগান গ্রামের ইছহাক আলীর ছেলে আজির উদ্দিন, আজির উদ্দিনের ছেলে কয়ছর, মিকিরপাড়া গ্রামের রফিকুল হকের ছেলে ফরিদ উদ্দিন, উজানবারাপৈত গ্রামের আজিজুল হকের ছেলে ইবজাল সহ আরো ৩/৪ জন একটি অবৈধ ভারতীয় চোরাচালানের সংবদ্ধ দল। আজিজুল হকের ছেলে ইবজাল কানাইঘাট থানা পুলিশের সোর্স হিসেবে কাজ করে এবং প্রায় সময় পুলিশের নামে এলাকায় চাঁদাবাজী করে থাকে। এই সংবদ্ধ দলের প্রায় সবার নামে চাঁদাবাজি, চোরাচালান, মাদক সহ বেশ কয়েকটি মামলা প্রক্রিয়াধীন। তারা সব সময় ভারত থেকে চোরাই পথে অবৈধভাবে মালামাল আনে। ইতোপূর্বে কয়ছর সহ এই সংবদ্ধ দলটির অন্যান্য লোকজন ভারত থেকে অবৈধভাবে গুরু আনার সময় বিএসএফের গুলিতে আহত হন। নাজিম উদ্দিন স্থানীয় বাজার কমিটির সভাপতি হওয়ার ফলে এ ধরনের কার্যকলাপের প্রতিবাদ ও কঠোর হাতে তা হস্তক্ষেপ করেন। এরই জের ধরে ২০১৮ সালের ১০ মার্চ ফরিদ উদ্দিন তার দলবল সহ নাজিম উদ্দিনকে হত্যার উদ্দেশ্যে আক্রমন করেন। এব্যাপারে নাজিম উদ্দিন বাদী হয়ে ২০১৮ সালের ১২ এপ্রিল কানাইঘাট থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং ১০, জি. আর. ৬৮ যা এখনও বিচারাধীন।

অভিযোগে তারা আরো উল্লেখ করেন, এই সংঘবদ্ধ দলটি আমাদেরকে হয়রানীর উদ্দেশ্যে বিভিন্ন ধরনের হুমকি ও প্রাণ নাশের ভয়ভীতি প্রদর্শন করে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় চলতি বছরের ২৮ মে আমাদের বিরুদ্ধে কানাইঘাট থানায় একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করে, যাহার মামলা নং- ১৬, জিআর-১০৫। বর্তমানে আমরা প্রাণের নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছি। এমতাবস্থায় এই সংবদ্ধ দলটির মামলাটি সঠিক তদন্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণে প্রশাসনের উর্ধ্বতন মহলের দৃষ্টি আকর্ষন করছি।

 (আমার বাংলাদেশ/কাআহমেদ// )

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে এখানে(লাইনে) ক্লিক করে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিন

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করবেন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by: -