মঙ্গলবার, ১১ অগাস্ট ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
করোনায় আক্রান্ত পাট মন্ত্রণালয়ের ৪ কর্মকর্তা-কর্মচারী  » «   হোয়াইট হাউসে সাংবাদিকদের বৈঠকের সামনে গুলি, সরিয়ে নেয়া হল ট্রাম্পকে  » «   রাশিয়ার তৈরি প্রথম ভ্যাকসিন কাজ করবে যে রকম  » «   করোনায় সারা বিশ্বে মৃত্যু ৭ লাখ ৩৪ হাজার ছাড়িয়েছে  » «   ভেন্টিলেশন সাপোর্টে প্রণব মুখার্জি  » «   নতুন রোগে আক্রান্ত বিশ্বের ১৩ কোটি মানুষ  » «   আজকের খেলার সময় সূচি  » «   আনুষ্ঠানিক অনুমতি পেলো আইপিএল  » «   অ্যাম্বুলেন্সেও জীবিত ছিলেন সুশান্ত,তদন্তে নতুন মোড়  » «   পাকিস্তানের বেলুচিস্তানে প্রদেশে বোমা বিস্ফোরণে নিহত ৬  » «   বার্মিংহামে প্লাস্টিক ফ্যাক্টরিতে ভয়াবহ আগুন  » «   খুলতে যাচ্ছে বান্দরবানের পর্যটনকেন্দ্রগুলো  » «   পদত্যাগের ঘোষণা দিলো লেবানন সরকার  » «   শোক দিবসে দেশের সব মসজিদে মসজিদে বিশেষ দোয়া  » «   বঙ্গবন্ধু ছিলেন বিশ্বনেতা”ড. হাছান মাহমুদ  » «  

নগর চত্বর’ প্রসঙ্গে সিসিক মেয়রের বক্তব্য

Sharing is caring!

আমার বাংলাদেশ অনলাইন ডেস্ক :সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, সাবেক মেয়র বদরউদ্দিন আহমদ কামরান-এর মৃত্যুর ঘটনাটি আমাদের এখনো শোকাহত করে রেখেছে।

তাঁর মৃত্যুর পরপরই আমি নিজ থেকে ইচ্ছা পোষন করেছিলাম একজন জনপ্রিয় জনপ্রতিনিধি ও নগরবাসীর সেবক হিসাবে তাঁকে স্মরণীয় করে রাখতে।

গণমাধ্যম কর্মীরা জানতে চাওয়ায় তখন বলেছিলাম, সিসিকের পক্ষে একটি উদ্যোগ নেব।এরপর বিভিন্ন ব্যক্তির কাছ থেকে নগরীর সিটি পয়েন্টকে নতুন নামকরণ ‘কামরান চত্বর’ ঘোষণা করার মৌখিক প্রস্তাব আসে।

সিটি পয়েন্ট বা নগর চত্বরে নামকরণের আরও প্রস্তাব ছিল উল্লেখ করে মেয়র বলেন, মরহুম জননেতা দেওয়ান ফরিদ গাজী, সাবেক অর্থ ও পরিকল্পনামন্ত্রী মরহুম এম সাইফুর রহমান, সিলেট পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান মরহুম আ ফ ম কামাল, মরহুম এনামুল হক চৌধুরী বীরপ্রতীক, আওয়ামী লীগের নেতা মরহুম ইফতেখার হোসেন শামীম ও করোনায় আক্রান্ত হয়ে বাংলাদেশের প্রথম মারা যাওয়া সিলেটের চিকিৎসক ডা. মঈন উদ্দিনসহ গুরুত্ব ব্যক্তিদের নামকণের প্রস্তাব আসে।

সিসিক মেয়র বলেন, কামরান ভাইয়ের পরিবার থেকে (তাঁর ছেলে ডা. আরমান আহমদ শিপলু) প্রস্তাব আসে কোন প্রতিষ্ঠানকে বদরউদ্দিন আহমদ কামরানের নামে নামকরণ করার।

কিন্তু এই সময়ের মধ্যে সিসিকের সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত না হওয়ায় এনিয়ে কোন আলোচনা বা সিদ্ধান্ত নেয়া যায়নি। ২৮ জুলাই সিসিকের সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হবে। সেখানে এ বিষয়ে আলোচনা হবে। সিদ্ধান্ত হলে মন্ত্রনালয়ে অনুমোদনের জন্য পাঠাবো।

সিসিক মেয়র আরো বলেন, সিটি পয়েন্ট বা নগর চত্বর নগরীর কেন্দ্রস্থলের একটি ট্রাফিক আইল্যান্ড।এখানে ট্রাফিক পুলিশ দাঁড়িয়ে সিগনাল করার ব্যবস্থা রয়েছে।

নগরীর সৌন্দর্যবর্ধন প্রকল্পে এখানে দেশে ও বিদেশে সিলেটের প্রতীকখ্যাত ঐতিহ্যবাহি স্থাপনার আদলে একটি নন্দনিক স্থাপনা নির্মাণকাজ সম্পন্ন হলে উন্মোচন করা হয়েছে। নতুন কোনো নামকরণ করা হয়নি।প্রস্তাবিত নামকরণগুলো বিবেচনায় রেখে সংশ্লিষ্টদের অনুমোদন সাপেক্ষে গুরুত্বপূর্ণ স্থানটির নামকরণ হোক, এটাই আমার প্রত্যাশা।

(আমার বাংলাদেশ/রুআহমেদ// )

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে এখানে(লাইনে) ক্লিক করে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিন

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করবেন

Sharing is caring!

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by: -