বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
প্রেমের টানে জৈন্তাপুরে ভারতীয় খাসিয়া নারী হুলুস্থুল  » «   সিলেটে পদ্মা, মেঘনা, যমুনা ও কৈলাশটিলা গ্যাস ফিল্ডকে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম  » «   ১২নং ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি শামীম আহমদের জিডি  » «   ইসলামী যুব আন্দোলন বিমানবন্দর থানা আহ্বায়ক কমিটি গঠন  » «   স্পেনে টাইগার মাদ্রিদের নতুন জার্সি উন্মোচন ও টুর্নামেন্টে শুভ সূচনা  » «   সিলেটে কমলা লেবু-মাল্টার উৎপাদন বাড়াতে বিশেষ উদ্যোগ  » «   ভারত পালাতে যাওয়া সাদাত গ্রেফতার  » «   স্যার সলিমুল্লাহর কারণেই ঢাকা রাজধানী  » «   জগন্নাথপুরে সরকারি গাড়ির ধাক্কায় শিশু আহত  » «   জগন্নাথপুর কলেজ সরকারি হলেও সুযোগ-সুবিধা বে-সরকারি  » «   ছাতকের দু’ ফিলিং ষ্টেশনে ১ লক্ষ টাকা জরিমানা  » «   দোয়ারায় কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা প্রেমিককে দায়ী করে মামলা  » «   সিলেট মহানগর কৃষক লীগের বর্ধিত সভায় শামীমা শাহরিয়ার এমপি  » «   যৌবন ধরে রাখতে চালকুমড়া  » «   নারীদের দিকে বেশি নজর দিন মোদীকে মিস সুন্দরী  » «  

আমাদের ভুলে যেওনা!

মনিরুজ্জামান রনি :একটি সংসারে অনেক সুখ ছিল। হাসি গানে ভরা ছিল জীবন। হঠাৎ নেমে এলো এক কাল বৈশাখী জড়। সে জড়ে নিয়ে গেল ছোট্ট দুটি ভাই বোনের প্রিয় বাবাকে অনেক দূরে। জীবনে নেমে এলো অনামিষার অন্ধকার। শেকড়বিহীন গাছের মতো খড়কুঠের জীবন হয়ে গেলো তাদের। অযতœ অবহেলা যে তাদের নিত্যদিনের সাথী হয়ে গেলো। চাকুরী প্রেমে মগ্ন মায়ের সংসারে দুটি ভাই বোনের অসহায়ত্ব যে কাউকেই পীড়া দিবে, কষ্ট দিবে। মেয়েটি পড়ত শহরের একটি স্বনামধন্য কিন্ডারগার্ডেনে। এখন সে পড়াশুনা করে প্রান্তিক জনপদের অচিন এক স্কুলে। মেয়েটি ছিল খুব বুদ্ধিমতি। চাঞ্চল্য ছিল তার হাসি গানের খোরাক। কিন্তু এখন সে যেন নির্বাক হয়ে গেল। সে এখন কারও সাথে ভালভাবে কথা বলে না। অজানা কারনে বাবাকে হারিয়ে এখন মাকেও তারা কাছে থেকেও কাছে পায় না। কাজের ব্যস্ততায় সন্তানের কাছে থাকার সময়টুকু নেই মায়ের। নিষ্পাপ শিশুটির প্রশ্ন- আমাদের ছেড়ে শুধু তোমরা কেন এতো দূরে থাক। চাকুরী না করলে কি হয় না? আমাদের দু’ ভাই বোনকে শুধু মানুষ অবহেলা করে। আমরাতো এখন অনেক ছোট। আমি সাত বছরের আর রবিনের বয়স মাত্র ৩ বছর। অনেক মানুষ বলে আমার বাবা নাকি বিদেশ যায় নি সে নাকি মরে গেছে। সত্যি বলতো আমার বাবা কি কখনও ফিরে আসবে না। বাবাও নাই তুমিও টাকার জন্য আমাদের ছেড়ে কতো দুরে চলে যাও। আমরা কি দোষ করেছি কেউ আমাদেরকে নিয়ে কিছুই ভাবনা কেন? আসলে কি আমি আর রবিন তোমাদের সন্তান। নাকি শুধু জলে ভাসা পদ্ম। পানি ওতো সাগরে এসে থেমে যায়, আমাদের তো এ টাও হয় না। কখন তুমি রেখে চলে যাও টাকার জন্য। আবার বাবা কোথায় হারিয়ে গেছেন, তাও জানি না। বলতো আসলে কি ভালোবাসা বলতে পৃথিবীতে কিছু নেই। আমরা দুটি ভাই বোন কিছু বুঝি না। শুধু বুঝি আমাদের বাবা-মা কি আসলে বাবা- মা, নাকি তারা আমাদের কুড়িয়ে পেয়েছে। তা না হলে তারা আমাদের কাছে থাকে না কেন? জানি আজ তোমাদের কিছু বলার নেই। কেননা আজ আমরা নিতান্ত শিশু, তাই। একবার শুধু বল কি চাও তোমরা আমাদের জন্য। তোমাদের জীবন তো শেষ কিন্তু আমাদের তোমরা কি শিখিয়ে গেলে। শুধু অবহেলা আর কষ্ট। তুমিতো মা- বাবাতো জানিনা আসলে কোথায়। মা এমন একদিন যদি আসে সে দিন যদি আমরা হারিয়ে যাই সেদিন কি হবে তোমাদের এতো টাকা দিয়ে। যদি আমাদের মানুষের মতো মানুষ করে গড়তে না পার তাহলে আমরা ভাববো পৃথিবীতে মা বাবা বলতে কিছু নেই। আমাদের শত কষ্ট ও অবহেলা বার বার বলে দেবে আমাদের মা বাবাও কি আমাদের আপন নয়। মানুষের জীবনের এমন পরিণতি কখনও কাম্য নয়। কাউকে কষ্ট দেয়া, হিংসা করা, নিয়েকে অনেক বড় ভাবা, কাউকে সম্মান না করা, মিথ্যা বলা, কিংবা কাউকে কিছু না দেখে অবিশ্বাস করা। মোটেই কাম্য হতে পারে না। আমরাও তো মানুষ। আমাদের আছে সত্য, সুন্দর ও স্বাধীনভাবে বেঁচে থাকার অধিকার।

.

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে এখানে(লাইনে) ক্লিক করে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by: -